পরীমনি | পরিচয় | বিস্তারিত

পরীমনি বাংলাদেশ চলচ্চিত্রাঙ্গনের এক জনপ্রিয় এবং অত্যান্ত সুপরিচিত নাম । পরীমনি একজন অভীনয় শিল্পী এবং মডেল । তিনি বাংলাদেশের খুলনা বিভাগের সাতক্ষীরা জেলায় জন্মগ্রহণ করেন । পরীমনি অত্যন্ত সুশ্রী, ন্যাচারাল বিউটি। নামের সঙ্গে তার সৌন্দর্য্যের প্রচন্ড মিল রয়েছে। 

পরীমনি | পরিচয় | বিস্তারিত

পরীমনি
পরীমনি

পরীমনি ব্যক্তিগত তথ্য

  • পুরো নামঃ               পরী মনি
  • জন্ম নামঃ               শামসুন্নাহার স্মৃতি
  • জন্ম তারিখঃ           ২৪ অক্টোবর ১৯৯২
  • বর্তমান বয়সঃ        ২৮ (২০২১ সালে)
  • ধর্মঃ                      ইসলাম
  • জন্ম স্থানঃ             সাতক্ষিরা, খুলনা, বাংলাদেশ
  • পেশাঃ                  অভীনেত্রী, মডেল
  • জাতীয়তাঃ           বাংলাদেশী
  • অভিষেকঃ            ভালবাসা সীমাহীন

পরীমনির ওজন, উচ্চতা এবং শরীরের মাপ

  • উচ্চতাঃ                          ৫’৬’’ (১৬২ সে.মি বা ১.৬২ মি)
  • ওজনঃ                           ৫৬ কেজি (১২৩.৪৬ পাউন্ড)
  • শরীরের পরিমাপঃ          ৩৪-২৩-৩৪ ইঞ্চি
  • ব্রা সাইজঃ                     ৩৪-b
  • কোমরের মাপঃ             ২৩ ইঞ্চি
  • নিতম্বের সাইজঃ            ৩৪ ইঞ্চি
  • জুতার মাপঃ                 
  • ড্রেস সাইজঃ                  
  • চুলের রং:                    কালো
  • চোখের রং:                 কালো
  • শরীরের গঠন:            Hourglass

পরীমনির জীবনী

পরীমনির জন্ম নাম পরীমনি না। তার জন্ম নাম শামসুন্নাহার স্মৃতি। পরীমনি ১৯৯২ সালের ২৪ অক্টোবর খুলনা বিভাগের সাতক্ষীরায় শামসুন্নাহার স্মৃতি হিসাবে করেন। ছোটবেলায় মা সালমা সুলতানাকে ও বাবাকে হারানোর পর পরীমনি বড় হয়েছেন পিরোজপুরে নানা শামসুল হক গাজীর কাছে। সেখান থেকেই তিনি তাঁর মাধ্যমিক এবং উচ্চ মাধ্যমিক শেষ করেন। 

সাতক্ষীরা সরকারি কলেজে বাংলা বিভাগে ব্যাচেলর অফ আর্টস (বিএ) (সম্মান) এ পড়াকালীন ২০১১ সালে ঢাকায় চলে আসেন এবং বুলবুল ললিতকলা একাডেমি (বাফা) নাচ শেখেন।

পরিচালক নজরুল ইসলাম এর রানা প্লাজা সিনেমার মাধ্যমে পরীমনির ক্যারিয়ার শুরু হয়। কিন্তু বাংলাদেশী সিনেমা সেন্সর বোর্ড সিনেমাটি বন্ধ করে দেয়। পরবর্তীতে তার প্রথম মুক্তিপ্রাপ্ত সিনেমা ভালবাসা সীমাহীন মুক্তি হয় ২০১৫ সালে । ভালবাসা সীমাহীন সিনেমার পরিচালক ছিলেন রওশন আরা নীপা ।

পরীমনির বিয়ে

পরীমণি ২০১০ সালে খালাত ভাই ইসমাইল হোসেনকে পারিবারিক ভাবে বিয়ে করেন। যৌতুক দিতে না পারায় ২ বছর পর বিচ্ছেদ হয়। ২৮ এপ্রিল ২০১২ সালে বিয়ে হয় কেশবপুরের ফুটবলার ফেরদৌস কবীর সৌরভের সাথে। 

এর পর ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ সালে সাংবাদিক তামিম হাসানের সাথে পরীমনির বাগদান সম্পন্ন হয়, পরে বিয়ে করে সংসার পাতেন। পরবর্তীতে তাদের বিচ্ছেদ হয়। ৯ মার্চ ২০২০ সালে তিনি পরিচালক কামরুজ্জামান রনিকে তিন টাকা দেনমোহরে বিয়ে করেন। ঐ বছরেই তাদের বিচ্ছেদ হয় ।


পরীমনির দাম্পত্য জীবন

  • ইসমাইল হোসেন (বিয়ে. ২০১০; বিচ্ছেদ. ২০১২)
  • ফেরদৌস কবীর সৌরভ (বি. ২০১২; বিচ্ছেদ. ২০১৪)
  • তামিম হাসান (বি. ২০১৯; বিচ্ছেদ. ২০২০)
  • কামরুজ্জামান রনি (বি. ২০২০; বিচ্ছেদ. ২০২০)

পরীমনির পিতা কে ?

পরীমনির বাবা একজন ব্যবসায়ী, নাম মনিরুল ইসলাম । পরীমনির বাবা মনিরুল ইসলাম ২০১২ সালে মৃত্যুবরণ করেন।

পরীমনির মায়ের নাম কি ?

পরীমনির তিন বছর বয়সে তার মা মৃত্যুবরণ করেন। তিনি ছিলেন একজন সাধারণ বাঙালী গৃহীনি । তার নাম সালমা সুলতানা
পরীমনি বাবা
পরীমনির বাবা

পরীমনির প্রিয় জিনিস

  • প্রিয় খাবার: মাছ, ডোনাট, পাস্তা
  • প্রিয় অভিনেতা: সালমান শাহ
  • প্রিয় অভিনেত্রী: শাবনূর
  • প্রিয় টিভি শো: প্রথম আলো টিভি অনুষ্ঠান
  • প্রিয় রং: নীল
  • প্রিয় গন্তব্য: কক্সবাজার

পরীমনির কিছু সিনেমার তালিকা

  • ২০১৫ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ভালোবাসা সীমাহীন, পাগলা দিওয়ানা, আরো ভালোবাসবো তোমায়, প্রেমিক নং 1. নগর মাস্তান, মহুয়া সুন্দরী, আমার মন জুড়ে তুই, রানা প্লাজা,  ইনোসেন্ট লাভ,  সারপ্রাইজ, প্রবাসী ডন, ভালবাসার ওনেক জ্বালা।
  • ২০১৬  সালে মুক্তিপ্রাপ্ত রক্ত, ধূমকেতু
  • ২০১৭ সালে কত স্বপ্ন কত আশা,  সোনা বন্ধু
  • ২০১৮  সালে মুক্তিপ্রাপ্ত স্বপ্নজাল
  • ২০১৯  সালে মুক্তিপ্রাপ্ত বিশ্ব সুন্দরি

পরীমনি সম্পর্কে কিছু অজানা তথ্য

  • পরীমনি কি অ্যালকোহল পান করেন?: হ্যাঁ
  • পরীমনি কি ধূমপান করেন ?: হ্যাঁ
  • তিনি ২০১২ সালে তার অভিনয় জীবন শুরু করেছিলেন।
  • পরীমনি হলেন একজন সুপরিচিত অভিনেত্রী যিনি ভালোবাসা  সীমাহীন, স্বপ্নজাল প্রভৃতি বাংলাদেশী চলচ্চিত্রে তার কাজের জন্য পরিচিত।
  • তার প্রথম দুটি সিনেমা বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ড বন্ধ করে দেয়।
  • সে একজন ভালো বাবুর্চি

পরীমনির সর্বশেষ তথ্য


২০২১ সালের ৪ঠা আগস্ট পরীমনির বনানীর বাসায় র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়নের অভিযান শেষে বাসায় অনুমোদনহীন মিনিবার পরিচালনা ও মাদকদ্রব্য রাখার অভিযোগে তাকে আটক করা হয় ।

পরীমনিকে আটক করার পর প্রথম দফায় ৪ দিন এবং দ্বিতীয় দফায় ২ দিনের রিমান্ড দেন আদালত। ২৬ দিন কারাগারে থাকার পর ৩১ আগস্ট ২০২১ ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কেএম ইমরুল কায়েশ তাকে জামিন দেয়।

Conclusion:

পরীমনি অন্যন্ত পরিশ্রমের মাধ্যমে নিজেকে এত উচ্চতায় নিয়ে এসেছে । 

Post a Comment

0 Comments