ফ্রিজে মাংস সংরক্ষণ পদ্ধতি : How to store something safely in the fridge for a long time?

রান্নার আগে ফ্রিজে যেসব খাবার দ্রুত সংরক্ষণ করা জরুরি, তার মধ্যে প্রথমেই রয়েছে কাচা মাংস।

ফ্রিজে মাংস সংরক্ষণ পদ্ধতি : How to store something safely in the fridge for a long time?

কাঁচা মাংস খুবই পচনশীল। তাই বরফ করে কাঁচা মাংসে অণুজীব মেরে ফেলতে হবে। ভুল পদ্ধতিতে কাঁচা মাংস সরক্ষণ করলে খাদ্যে বিষক্রিয়া তৈরি করতে পারে। তবে কাঁচা মাংস সংরক্ষণের আগে সঠিক নিয়মগুলাে মানলে কয়েক মাস এমনকি বছর ধরেও মাংস ভালাে থাকে।

কাচা মাংস ফ্রিজে রাখার পদ্ধতি

  • বাজার থেকে মাংস এনেই ফ্রিজে রাখা জরুরি। কিন্তু পরিষ্কার না করে নয়। পুরােপুরি পরিষ্কার করতে না পারলেও পানি দিয়ে কিছু সময় ধুয়ে মাংসে লেগে থাকা রক্ত ধুয়ে নিতে হবে। কারণ, রক্তসহ মাংস দীর্ঘদিন ফ্রিজে রাখলে ব্যাকটেরিয়া আক্রমণ করে। এ ছাড়া এতে মাংসে একধরনের গন্ধও তৈরি হয়।
  • মাংস পলিথিন বা পাত্রে না রেখে শুধু ফেলে রাখা যাবে না। এতে মাংসের গুণাগুণ নষ্ট হয়। যতখানি সম্ভব মুখ বন্ধ পাত্র বা পলিথিনের মুখ বন্ধ করে ফ্রিজে রাখতে হবে। এতে বরফ হওয়া মাংস বের করতেও সুবিধা। 
  • কাঁচা মুরগির মাংস ডিপ ফ্রিজে আস্ত অবস্থায় রাখলে তা প্রায় ১ বছর পর্যন্ত ভালাে থাকে। আর কাটা অবস্থায় ৫-৬ মাসের মধ্যে রান্না করাই উত্তম। 
  • মাংস প্রয়ােজন বুঝে ছােট ছােট প্যাকেটে সংরক্ষণ করুন। এতে যেদিন যে প্যাকেটটি প্রয়ােজন, সেটিই নামাতে পারবেন।

কাঁচা মাংস ফ্রিজে রাখার সময় করণীয়

  • ফ্রিজে মাংস রাখার আগে অবশ্যই ডিপ ফ্রিজ পরিষ্কার করে নিতে হবে। আবার মাংস রাখার কিছুদিন পরও আবার ফ্রিজ পরিষ্কার করে নিন। এতে ফ্রিজের খাবারে দুর্গন্ধ হবে না। 
  • ফ্রিজে মাংস গুছিয়ে রাখতে হবে। এলােমেলাে ও গাদাগাদি করে মাংস রাখা সঠিন সংরক্ষণের নিয়ম নয়। 
  • ফ্রিজে মাংস রাখলে দুটি প্যাকেটের মাঝে একটি দূরত্ব রাখুন। এতে বাতাস চলাচল করতে পারবে। 
  • মাংসে অপ্রয়ােজনীয় হাড় ও তেল-চর্বি থাকলে তা কেটে ফেলে দিতে হবে। কারণ বরফ হলে পরবর্তীকালে পরিষ্কার করা কঠিন। 
  • গরুর মাংস, খাসির মাংস, মুরগির মাংস, হাঁসের মাংসও ভিন্ন প্যাকেটে রাখুন। মাংস বলে সব এক করে মিলিয়ে রাখা যাবে না। 
  • যে মাংস একটু থেঁতলে নিতে চান, তা ফ্রিজে রাখার আগেই নিতে হবে। কারণ, বরফ হলে তা তাজা মাংসের মতাে থাকবে না। 
  • মাংস যদি দীর্ঘদিন ফ্রিজে রাখার পরিকল্পনা থাকে, তবে অবশ্যই। ওপরে একটু লবণ ছিটিয়ে নিতে পারেন। এতে মাংসের স্বাদ, গুণাগুণ ও ঘ্রাণ ভালাে থাকবে।


মাংস ফ্রিজ থেকে বের করার পর

  • মাংস সরাসরি পানিতে ভিজিয়ে বরফ ছাড়ানাে ঠিক নয়; বরং পলিথিন বা পাত্র ভিজিয়ে রাখুন। বরফ ছেড়ে দিলে পানি দিয়ে ধুয়ে সঙ্গে সঙ্গে রান্না করে ফেলুন। 
  • মাংসের রং, গন্ধ ও স্বাদ ঠিক রাখতে বেশি পানিতে থােয়া বা বারবার ফ্রিজ থেকে বের করা যাবে না।

Conclusion:

মাংস দীর্ঘদিন সংরক্ষণ করতে পরিছন্নতা এবং হিমায়িত করা অপরিহার্য পরিছন্নতা এবং এর মাধ্যমে মাংসে ব্যাকটেরিয়া ছত্রাক জন্মাতে পারে না যার কারণে মাংস দীর্ঘদিন সংরক্ষণ করা যায় মনে রাখলে কোনভাবেই মাংস তে গন্ধ বা মাংস নষ্ট হবে না

Next Post Previous Post