অন্যের থেকে শিখুন, কিন্তু কখনোই কপি নয়- আমি উদ্যেক্তা হতে চাই (৪র্থ পর্ব) Be an entrepreneur!

সফলতার পথে বাধা হয়ে দাড়ায় কপি বা নকল । আপনি অবশ্যই সফল ব্যক্তিদের থেকে শিখতে পারেন, তবে কখনোই তাদের কপি করতে পারেন না। কপি করার মানেই হল আপনি পরাজিত, নিজের উদ্ভাবনি ক্ষমতা নেই আপনার ।

অন্যের থেকে শিখুন, কিন্তু কখনোই কপি নয়- আমি উদ্যেক্তা হতে চাই (৪র্থ পর্ব) Be an entrepreneur!

আগের পর্ব পড়ে না থাকলে..প্রত্যাখ্যান ব্যর্থতা নয় - আমি উদ্যেক্তা হতে চাই (৩য় পর্ব) Be an entrepreneur!
আসুন, দেখে নেওয়া যাক অন্যকে নকল বিষয়ে জ্যাক মা কি বলেছেন...

যারা আগে সফল হয়েছে তাদের কাছ থেকে শেখা বা প্রতিযােগীদের মতাে করে কাজ করাতে কোনাে দোষ নেই। কিন্তু যখন আপনি ওদেরকে নকল করে কোনাে বড়াে পদক্ষেপ নিতে যাবেন, আপনার ব্যবসা তখন আস্তে আস্তে মৃত্যুবরণ করবে।

জ্যাক বলেছেন, ব্যবসা শুরুর সময়ে অথবা দীর্ঘকাল ধরে ব্যবসায় করতে থাকা অবস্থায়, অন্যকে নকল করা আপনার এবং আমার জন্য সবচেয়ে সহজ প্রলােভন।

এটি এক ছােটো শয়তান, যে আপনার কাঁধে থেকে বলছে, এটি করাে, তারা এটি করছে, তাই তােমাকেও তাই করতে হবে!’ এটি সহজ পথে চলার প্রলােভন দেখাচ্ছে এবং আপনার প্রতিযােগীরা যা করছে তার প্রতিটি কাজই আপনাকে করতে বলছে। কিন্তু এ-ব্যাপারে অনেকেই ভালােভাবে সতর্ক করে দিয়েছেন যার দিকে আপনার খেয়াল করা উচিত।


আপনার প্রতিযােগী দীর্ঘদিন ধরে যা করে আসছে, আপনি তা করার চেষ্টা করে যাচ্ছেন। আপনি সম্ভবত পকেটের কানাকড়ি খরচ করে ওদেরকে ম্যানিওভার করতে চাচ্ছেন। কিন্তু যখন আপনি কোনাে ভালাে আইডিয়া পাবেন, তখন তা বাস্তবায়নে আপনার সামর্থ্য থাকবে না।।


আপনি হয়তাে অতিরিক্ত লােড নিয়ে চলছেন। যখন আপনি কাস্টমারদের জন্য এক্সট্রা কিছু অফার দিতে চাইবেন শুধু এ কারণে যে, আপনি তাদের সঙ্গে করা ব্যবসা ভােয়াতে চান না, তখন এসব একস্ট্রা দিতে গিয়ে আপনার বিরাট অঙ্কের অর্থের প্রয়ােজন হবে, অথচ সে অর্থ আপনার হাতে থাকবে না।


যদিও কিছু ক্ষেত্রে কপি করাটা অপরিহার্য হয়ে পড়ে এবং বর্তমান বিশ্বের অধিকাংশ উদ্ভাবনই বিদ্যমান উদ্ভাবনের সামান্যতম উন্নয়ন ছাড়া আর কিছু নয়। দিনের শেষে দেখা যাবে আপনি কালচার, আবেগ এবং শক্তিকে কপি করতে পারছেন না।


বুদ্ধিনির্ভরতা : Intelligence dependence

যদি আপনার কোনাে ছােটো ব্যবসা থাকে; যা বড়াে ব্যবসায়ের সঙ্গে প্রতিযােগিতা করে যাচ্ছে, আপনাকে বাজারের ছােটো কোনাে অংশ (niche) টার্গেট করতে হবে এবং আপনার মুখ্য যােগ্যতাকে ফোকাস করতে হবে।


যখন আপনার বিজনেস বড়াে হয়ে ওঠে এবং রেভিনিউ বাড়তে থাকে, তখন অতিরিক্ত সেবা এবং পণ্যের পরিবর্তে আপনি সিস্টেম তৈরি করতে এবং টিম গড়তে সিদ্ধান্ত নেবেন।


প্রথম অবস্থায়, জ্যাক ম্যা চাইতেন আলিবাবা-র কাস্টমার রিপ্রিজেন্টেটিভ নন-চাইনিজ রাখতে। কারণ তাদেরকে দেশের বাইরের কাস্টমারদের সঙ্গে ই-মেইলে যােগাযােগ রাখতে হতাে।


জ্যাক তাঁর যুদ্ধদর্শনের কলাকৌশল ঝালাই করে নিলেন। কিন্তু তিনি স্বীকার করতেন গ্লোবাল ই-কমার্সের মুক্ত বাতাসে eBay-কে একটি শার্ক মনে হতে পারে, কিন্তু ইয়াংজি নদীতে এমন কেউ আছেন যারা বাড়ির পাশে করা লড়াইয়ে সবসময় জিতে থাকেন।


আলিবাবা-কে সঠিক টেকনােলজি, সঠিক স্থান এবং চীনের সঠিক সময়ে সঠিক সার্ভিস দেওয়ার কথা মাথায় নিয়ে গড়ে তােলা হয়েছিল, যখন ইন্টারনেট ব্যবহারকারী বাড়তে থাকে, কনজিউমারদের সংখ্যা একটি চমৎকার ফিগার ৬০০ মিলিয়নে পৌঁছে যায়।


সব বিষয়কে সাধারণ চোখে দেখা : Seeing all things with the naked eye

নিজের কোন প্রডাক্ট বা শক্তিকে পারফেক্ট করা বেশ কঠিন কিন্তু যখন আপনি আপনার নতুন আইডিয়া যােগ করতে চাইবেন, তখন বড়াে কোনাে কাজ সম্পাদনে আপনার কার্যক্ষমতা থেকে বিচ্যুত হয়ে যেতে পারেন।

আপনার অফারের সঙ্গে যােগ করা প্রতিটি প্রডাক্ট বা সার্ভিস একটি মিনি-বিজনেস’-এ পরিণত হয় এবং তারপর আপনি তা জানার আগে, আপনার বিজনেস নতুন ক্যাচ-আপ খেলতে দৌড়তে থাকে।

আপনার লােকদেরকে প্রশিক্ষণ দিতে হবে, যাতে তারা নতুন ভেন্ডার খুঁজতে, সঠিক মূল্য ঠিক করতে, অপারেশন সেটআপ করতে, ডিজাইনার নিয়ােগ করতে, নতুন মার্কেটিং স্ট্রাটেজি ঠিক করতে পারে। এই লিস্ট আরও বড়ােহতে থাকবে।

স্টার্টআপদের বুঝতে হবে যে তাদেরকে বিজনেসের ওপরেই কাজ করতে হবে, বিজনেসের মধ্যে থেকে নয়। এই দুয়ের মধ্যে একটি চমৎকার সম্পর্ক রয়েছে এবং এখানে এমন একটি ব্যাপার আছে যা আপনাকে নিজের বিজনেসের হৃদয় থেকে সরিয়ে দিতে পারে।

যদি আপনি প্রতিযােগীর সামনাসামনি দাঁড়াবার সিদ্ধান্ত নেন, তবে আপনাকে অসংখ্য কাজ করতে হবে। এটি কোনাে স্মার্ট বা সঠিক কাজ নয় এবং এরই কারণে দশটির মধ্যে নয়টি স্মার্ট-আপ ব্যর্থতায় আপতিত হয়ে থাকে। এটি একটি কঠিন এবং বাস্তব সত্য এবং আপনি যদি ভালাে করতে চান তবে আপনাকে এটি নিয়ে ভাবতে হবে।

তরুন উদ্যেক্তাদের সুযোগ দেওয়া: Giving opportunities to young entrepreneurs

জ্যাক ম্যা বলছিলেন আলিবাবা-র ইকো সিস্টেমের ওপর, যা সারা দুনিয়ার ছােটো ছােটো ব্যবসায়ীদের সাহায্য করে যাচ্ছে।


আলিবাবা এর আইপিওতে জ্যাক এক বিবৃতি যােগ করেছিলে যাতে NYSE-তে ওপেনিং বেল বাজাতে পারে, তিনি নির্বাচিত কোনাে কাস্টমারদেরকে তার জন্য রিং বাজাতে দিয়েছিলেন।


ইউএসএ-তে প্রথম দিনের রাজকীয় অর্জন যা সবার দৃষ্টি আকর্ষণ করার পর জ্যাক সিদ্ধান্ত নিলেন তার পলিসির একটি শক্তিশালী কালচার নিয়ে, যেখানে বলা হলাে—

  • কাস্টমার হলাে প্রথম,
  • কর্মীরা দ্বিতীয় এবং
  • শেয়ারহােল্ডাররা থাকবে তৃতীয় স্থানে।

যখন এই মুভকে বিপুল পাবলিসিটি স্টান্ট মনে হয়, জ্যাক তখন আমাজন-এর সঙ্গে দ্বন্দ্বে না জড়িয়ে ভ্যালু যােগ করতে থাকেন।


জ্যাক ম্যা ব্যাখ্যা করে বলেন যে, আমাজন হচ্ছে অনেকটা সাম্রাজ্যের মতাে, যে আইডিয়ার ধারণা থেকে পণ্য সরবরাহও করে থাকে; যেখানে তাদের দর্শন হলাে ক্ষুদ্র ব্যবসাকে শক্তি জুগিয়ে যাওয়া, যাতে তারা মাইক্রোসফট বা আইবিএমের সঙ্গে প্রতিযােগিতা করতে পারে।

Conclusion:

বুদ্ধিনির্ভরতা এবং অন্যকে নকল করে না চলা একজন আদর্শ উদ্যক্তার চিহ্ন। সফল উদ্যেক্তা সব সময়ই নিজের উদ্ভাবনি চিন্তা শক্তির দ্বারা চলে থাকেন।

৫ম পর্বঃ ব্যবসার পরিধি ও জনবল বৃদ্ধি এবং মিতব্যয়ী হতে ধৈর্য্যশীল হওয়া প্রয়োজন - আমি উদ্যেক্তা হতে চাই (৫ম পর্ব) Be an entrepreneur!

আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ।

Last Line: অন্যের থেকে শিখুন, কিন্তু কখনোই কপি নয়- আমি উদ্যেক্তা হতে চাই (৪র্থ পর্ব) Be an entrepreneur!

Post a Comment

Post a Comment (0)

Previous Post Next Post